Thursday, January 25, 2018

ইটের বিকল্প ব্লক তৈরির ব্যবসা করে আজি হোন কোটিপতি

দেশে মাটি কেটে কৃষি জমি নস্ট করে সেই মাটি দিয়ে সনাতন পদ্ধতিতে যে ইট বানায় তা দেশের জন্য ক্ষতিকর, এবং পুড়িয়ে শোখানোর জন্য আমাদের দেশের প্রাকৃতিক সৌন্ধর্য আজ হুমকির মুখে, পরিবেশে এই ভয়াবহ বিপর্যয় ঠেকাতে সরকারি ভাবে ২০১৮ সাল থেকে সিটি কর্পোরেশন ও ২০২০ এর মধ্যে সারা দেশেই ইট তৈরি বন্ধ করে দিচ্ছে। 

তাই এখন বাড়ি-ঘর, অফিস বিল্ডিং ইত্যাদি তৈরিতে ইট এর পর এখন সারা পৃথিবীর মতো আমাদের দেশেও ব্লক এর চাহিদা বাড়ছে। 

চিত্রঃ সলিড ব্লক ও হলোব্লক মেশিন 


আমাদের দেশে এখন যারা খুভ শিক্ষিত বা বিদেশ ট্রাভেল করেন অথবা যারা দেশের বাহিরে প্রবাসী আছেন তারাই এই ব্লক সম্পর্কে ভালো জানেন বা বুঝেন। এছাড়া দেশের সিংহ ভাগ লোকেই এই ব্লক সম্পর্কে বুঝেনা।

কিন্তু আমাদের দেশের প্রায় ঢাকার মধ্যে প্রতিটি ইট ভাটার মালিক কম বেশি প্রতি সিজনে আয় করেন ৭০ লক্ষ থেকে প্রায় ২০ কোটি টাকা। 

কারন কস্ট্রাকশন বা সিভিল কাজের নির্প্রমান কাজের কাচামাল ইট এর চাহিদা প্রচুর , তাই প্রতি বছর প্রায় ৫-৬ মাসে এই টাকা ইনকাম করেন মালিক পক্ষ। 

চিত্রঃ ০১ - এক সাথে ৬ পিস ব্লক তৈরির মেশিন ( নন হাইড্রলিক) 

এখন যেহেতু আমাদের দেশে এই ইট ভাটা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এবং উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে তাই এই ব্লক এর চাহিদা প্রচুর। 

দেশের মধ্যে একমাত্র আমরাই বিদেশ থেকে ব্লক মেশিন আমদানি করি, এবং আফটার সেল সার্ভিস দেই, এবং প্রতিটা মেশিন ১ বছরের সার্ভিসিং ফ্রি দেই। 

মেশিন কিনলে ট্রেনিং ফ্রি দেই, কাজ শিখানোর জন্য আমাদের আছে দক্ষ সিভিল ইঞ্জিনিয়ার।


চিত্রঃ ব্লক তৈরির উপাদান 

উপাধান কি কি লাগে 
১- সিমেন্ট, ২- বালি, ৩-পাথর 
প্রাইজ কমানোর গোপন ফর্মুলা আছে আমাদের কাছে, তাতে খরচ কমে অনেক। মেশিন কিনলেই ফ্রি টিপস!



আয় - ইনকাম 
আমাদের মেশিন এর একেক টা ব্লক সমান আমাদের দেশের ৪.৫ (সারে চার) টা ইট, আমাদের এই ব্লক তৈরি করতে ঢাকায় খরচ হয় ২৫-৩০ টাকা । 

কিন্তু ৪.৫ (সারে চার) টা ইট এর মুল্য ৩৬ টাকা। ৮ টাকা করে ১ পিস হলে।

চিত্রঃ ব্লক এর আকার।


তাই এই ব্লক খুভ সহজেই বিক্রি করে আপনিও আয় করতে পারেন আনলিমিটেট টাকা। আর হয়ে যেতে পারেন ১ বছরেই কোটি পতি। 

আপনি যদি প্রতি দিন ১০ হাজার ব্লক তৈরি করেন, তবে ব্লক এর দাম হবে ৩৫-৪০ টাকা করে সেল করলে মিনিমাম ৫ টাকা লাভ ধরলেও ৫০ হাজার প্দিরতি দিনে ইনকাম। 

তাহলে ৩০ দিনে ৩০ x ৫০০০০ = ১৫০০০০০ টাকা
এক বছরে 12 x 1500000 = 18000000 Taka লাভ ওয়াও..

আপনার কোটিপতি হওয়া ঠেকায় কে? 


                              চিত্রঃ ০১ - গাড়ি চালিত, মিক্সার সাথে ৬ সেট ডাইস blok Machine 

মেশিন এর প্রাইজ  

মেশিন বিভিন্ন কোয়ালিটির বিভিন্ন প্রাইজের পাওয়া যায়। 

মেশিনঃ
১- এক সাথে ২ পিস হলোব্লক তৈরির মেশিন ১৩০০০০ টাকা, প্রডাকশন দিনে- ১৫শ - ২ হাজার পিস। 
২- এক সাথে ৬ পিস সলিট ব্লক তৈরির মেশিন ১২০০০০ টাকা, প্রডাকশন দিনে- ৫-৬ হাজার পিস। 
৩- এক সাথে ৬ পিস হলোব্লক তৈরির মেশিন ৩৮০০০০ টাকা, প্রডাকশন দিনে- ৪-৫ হাজার পিস। 
৪- এক সাথে ৬ পিস হলোব্লক তৈরির মেশিন হাইড্রলিক পেশার ৪৫০০০০ টাকা, প্রডাকশন দিনে ৪-৬ হাজার পিস। 

চিত্রঃ ব্লক তৈরির কারখানা 

হেভি মেশিনঃ 
১- এক সাথে ৬ পিস ব্লক তৈরির মেশিন হাইড্রলিক, সাথে ৬ সেট ডাইস ৮৫০০০০ টাকা, প্রডাকশন দিনে ৪-৬ হাজার পিস।
২- এক সাথে ৬ পিস ব্লক তৈরির মেশিন হাইড্রলিক, কনভেয়ার বেল্ট সাথে, মিক্সার সাথে ১০ সেট ডাইস ১৮০০০০০ টাকা অটো, প্রডাকশন দিনে ৭-৮ হাজার পিস।
৩- এক সাথে ৬ পিস ব্লক তৈরির মেশিন হাইড্রলিক, গাড়ি চালিত, মিক্সার সাথে ৬ সেট ডাইস ২৩০০০০০ টাকা অটো, প্রডাকশন দিনে ১০-১৩ হাজার পিস।

এছাড়াও আরো বিভিন্ন ধরনের মেশিন পাওয়া যায়, আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী মেশিন আমদানি করা হবে। 


                                                          মেশিন এর ভিডিও দেখুন 


মেশিন কেনার নিয়ম 
আমরা ইম্পোর্টার ও ইঞ্জিনিয়ারিং সাপোর্ট দিয়ে থাকি, আমরা যে কোন মেশিনি অর্ডারের পর আমদানি করে থাকি, তাই আমাদের অফিসে এসে অর্ডার দিতে হবে। 

চায়না থেকে মেশিন আসতে ৩৫-৪০ দিন লাগে, তাই অর্ডারের পর ৩০-৪০ দিন পর মেশিন পাবেন। 



পেমেন্ট সিস্টেম- 
অনলাইনে পেইজাতে পেমেন্ট দিতে পারবেন, ব্যাংকে পেমেন্ট করে স্লিপ নাম্বার সহ পে স্লিপ এর ফটোকপি দিতে হবে। অথবা আমাদের লোক সাথে নিয়ে ব্যাংকে দিতে পারেন, ব্যাংক ট্রান্সফার করতে পারেন।  
১- যদি কোন মেশিন ৩ লক্ষ টাজার বেশি প্রাইজ হয়, তাহলে ৭০% এডভান্স দিতে হবে, বাকি টাকা মেশিন আশার পর। 
২- যদি কোন মেশিন ৩ লক্ষ টাজার কম প্রাইজ হয়, তাহলে ৫০% এডভান্স দিতে হবে, বাকি টাকা মেশিন আশার পর। 
সবার মিতো আমাদের কাছেও মালের অর্ডার দিলে ক্যাশ মেমো, আর অর্ডার চুক্তি ফর্ম পাবেন, যদি পেমেন্ট ৫ লক্ষ টাকার বেশি হয় তবে আমরা সিকিউরিটি হিসেবে ব্যাংক চেক দেই। অন্যথায় দেই না, 

সবাই আমাদের কাছ থেকে এভাবেই মেশিন কেনে, তাই আপনি সব কিছু যেনে শুনেই আসেন আমাদের অফিসে, যাকেই অর্ডার দিবেন মেশিন এর জন্য আগে যেনে নিবেন তার অফিস কি তার নিজ এলাকায় কিনা? 



সতর্কতাঃ 
কিছু না ভেবে চিনতে মেশিন এর টাকা পেমেন্ট বা অর্ডার দিলে তারা প্রতারিত করে, এতে আমাদের মতো অনেক ব্যবসায়ীর ভাব মুর্তি নষ্ট হয়, তাই খোঁজ নিন, তার অফিস তার নিজ এলাকাতে কিনা? যদি হয় তাহলে অর্ডার দিন। 

এছাড়াও বর্তমানে সোসাল মিডিয়া অনেক সহজ ও জনপ্রিয়, তাই অনলাইনেও তাদের বেপারে খোঁজ নিন, তাহলে বুঝবেন তারা ব্যবসায়ী নাকি প্রতারক। 

যারা দোকানি তারা অনেকে মেনেজ করে দিতে পারবে বলে অর্ডার নেয়, পর্বর্তিতে তারা হয়রানি করে, তাতে আমাদের ভাব মুর্তি নষ্ট হয়, তাই তাদের অর্ডার দেওয়ার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। 

এসব সম্পুর্ন ইঞ্জিনিয়ারিং সাপর্ট বেইজ কাজ, তাই ভালো হবে ইঞ্জিনিয়ার রিলেটেট কারো মাধ্যমে মেশিন ক্রয় করা। 

এমন অনেক কিছুই দেখে শুনে ব্যবসা করেন, ইনশাল্লাহ প্রতারিত হবেন না। 

আমরা কথায় না কাজে বিশ্বাসী, যারা প্রবাসী, বেকার বা নতুন উদ্যোক্তা তাদের ক্ষেত্রে এই চিন্তা গুলো বেশি হয়, কিন্তু যারা রানিং ব্যবসায়ী তাদের এতো কিছু বুজানো লাগেনা, তারা অনেক অভিজ্ঞ। 




**************************************************************
যাই হোক যারা মেশিন কিনে ব্যবসা করতে চান তারা আজি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন- 
আমাদের অফিসে প্রচুর সম্মানিত ক্লাইন্ড আসে তাই আমরা খুভ বিজি থাকি, তাতে অনেকের কল রিসিভ করতে পারিনা, তাই কলে না পেলে মেসেজ করে রাখুন। 


যখন আমাদের কাস্টমার হবেন, তখন আপনার নাম্বার সেইভ করে রাখা হবে, তখন কল রিসিভ করা হবে, অপরিচিত নাম্বার ফ্রি টাইমে রিসিভ করা হয়। 


তাই মেসেস দিয়ে রাখেন- 
ইমু + হোয়াটসেপ + ভাইবার ঃ + ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, উহিচ্যাট- abc-engineering



অফিস এর ঠিকানাঃ 
এবিসি ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড
ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান
ব্যবস্থাপক পরিচালক
রাজেন্দ্রপুর বাজার ( ক্যান্টনমেন্ট), পোস্ট অফিস এর ডানে, মীর সুপার মার্কেট ২য় তলায়, 
গাজীপুর-১৭৪১, ঢাকা, বাংলাদেশ।  
মোবাইলঃ ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, ০১৭৫৮৬৩১৮১৩
e-mail: engr.mahadiviruss@gmail.com
www.mahaditrade.com

মেসেস দিয়ে রাখেন- 
ইমু + হোয়াটসেপ + ভাইবার ঃ + ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, উহিচ্যাট- abc-engineering

www.facebook.com/exportbdimport

www.youtube.com/mahadivirus



TAG: Block making machine, hollow Block making machine, solid Block making machine, Block making machine price in bd, low price Block making machine, 01977886660, ব্লক তৈরির মেশিন, ম্যানুয়াল ব্লক তৈরির মেশিন, ব্লক মেশিন পাওয়া যায়, ব্লক মেশিন বাংলাদেশ, ব্লক তৈরির নিয়ম, অটো ব্লক মেকিং মেশিন, কিভাবে ব্লক বানায়, কিভাবে ব্লক তৈরি করে, ব্লক মেশিন কোথায় পাওয়া যায়, how to make a block making machine.   


Saturday, November 11, 2017

অল্প টাকায় ব্যবসা করতে পারেন ১ম পর্ব, A small business can make money

আমরা যারা আমাদের আয় বাড়াতে চাই, তারা প্রতিনিয়ত নতুন কিছু করতে চাই, বা যারা এখনো কিছু করতে পারছেন না, তারা কিছু শুরু করতে চান অল্প টাকায়, তাদের জন্য আমার কিছু অল্প টাকায় ব্যবসার আইডিয়া মাথায় (ইনভেস্ট ছাড়াই আয় করুন ১৫০০০০ টাকা মাসে) গুর পাক খাচ্ছে, (আমি চাকুরির পাশা পাশি করি) ---- তাই আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করতে আসলাম, প্লিজ ঠাণ্ডা মাথায় একটু পড়ে বুঝে দেখুন, আপনার না হলেও আপনার আসে পাশের কারো কাজে লাগতে পারে। 



আপনি প্রথমেই অল্প টাকায় ২০ - ৩০ হাজার টাকায় শুরু করতে পারেন - ইলেকট্রিক + ইলেকট্রনিক্স এর ব্যবসা।

-> যেমন -> টর্চ লাইট, চার্জ লাইট, চার্জার ফ্যান, এমপ্লিফায়ার সার্কিট, সুপারগ্লু, সিলিং ফ্যান এর ক্যাপাসিটোর, ভলিয়ম সার্কিট, LED লাইট, মোটর সাইকেলের বেয়ারিং, সিলিং ফ্যানের বেয়ারিং, সুইচ, ভোল্টেজ স্ট্যাবিলাইজার, মিনি IPS ইত্যাদি -> 
------------------------------------------------------------------------------------------------------------







মাসে ৫ লক্ষ টাকা আয় করতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। 
https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=775621&ga=g


এই দরনের প্রোডাক্ট এর কেনা দাম এর চেয়ে প্রায় ২ -৩ গুন বেশি দামে বিক্রি করা যায়। প্রথমে আপনার আত্মীয় স্বজন দের কাছে বিক্রি করা শুরু করেন, পরে আস্তে আস্তে আপনার এলাকায়, তার পরে বিভিন্ন দোকানে বিক্রি শুরু করতে পারেন। এতে আপনার ও ভালো কিছু ইনকাম হবে। 



আমাদের দেশে যে হারে লোড শেডিং হচ্ছে, বার বার কারেন্ট আসার কারনে অতিরিক্ত হাই ভোল্টেজ হচ্ছে এতে করে আমাদের ইলেকট্রিক ডিভাইস গুলোর অনেক ক্ষতি হচ্ছে, এর হাত থেকে বাচতে হলে আমাদের এই ডিভাইস গুলোর সুরক্ষার জন্য Voltage Stabilizer ব্যবহার করা অতি গুরুত্ব পুর্ন। 

তাই আপনার আত্মীয় স্বজন দের কাছে এই Voltage Stabilizer বিক্রি করতে পারেন। ভালো ইনকাম করতে পারেন। 


আপনি প্রথমেই অল্প টাকায় ২০ - ৩০ হাজার টাকায় শুরু করতে পারেন - সাইকেল এর মোটর সেটআপের এর ব্যবসা।



অন্যান্য দেশের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশেও এখন সাইকেলে মটর লাগানোর দুম পরে গেছে। এখন অনেকেই কম খরছে তার বাই সাইকেল কে ইলেকট্রিক সাইকেলে রূপান্তরিত করে ফেলছেন। 



এতে করে চলা ফেরায় অনেক সুবিধা হচ্ছে, এই মটোর সেটাপের জন্য একটি মটর + ব্যাটারি লাগালেই কাজ শেষ, সেটাপ ও সহজ, একবার চার্জ দিলে চলেও ৪০-৫০ কিলোমিটার। চার্জ খরচ ও অনেক কম, মাত্র ৫-১০ টাকা। সাইকেলের মোটর সেট কিনতে ঃ মাছুম ইলেক্ট্রিক- ০১৯৩৩৪৫৭৭১০, ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০



আপনি প্রথমেই অল্প টাকায় ২০ - ৩০ হাজার টাকায় শুরু করতে পারেন - রিক্সা এর মোটর সেটআপের এর ব্যবসা।



নরমাল রিক্সা গুলোতে এখন ইলেকট্রিক মোটর লাগানোর ব্যাবসাও হচ্ছে, সহজেই সেট আপ করতে পারেন এই মোটর। 



এছারা রিক্সার বিভিন্ন লাইট, টিট হর্ন, মিউজিক হর্ন, লেচু লাইট, মিউজিক লাইট, ব্যাটারি, পিনিয়াম, চার্জার, মোটর ইত্যাদি বিক্রি করতে পারেন, লাভ ভালোই। 

এছাড়া আরও অনেক কিছুই বর্তমানে করতে পারেন, বর্তমান চাহিদা অনুযায়ী অনেক ব্যবসাই আছে আমাদের চারি দিকে, একটু খুঁজ নিলেই করতে পারেন কম টাকায় ব্যাবসা, আরও কিছু জানার থাকলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। যতদূর পারি সাহায্য করবো। 

মাসে ৫ লক্ষ টাকা আয় করতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন। 
https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=775621&ga=g

অল্প টাকায় ব্যবসা করতে পারেন ২ম পর্ব, A small business can make money

 

 

http://mahaditrade.blogspot.com/2016/11/blog-post_14.html







মেহেদি- ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, 01758631813 ফেইজবুকে আম

আমাদের Youtube চ্যানেল ঃ mahadi virus


Tag: olpo takar bebsha, alpa takar bebsha, low cost business, অল্প টাকায় ব্যবসা, অল্প টাকায় ব্যবসা করুন, অল্প টাকায় কি ব্যবসা করা যায়, অল্প টাকায় লাভ জনক ব্যবসা, অল্প টাকায় সহজ ব্যবসা, ধনি হওয়ার সহজ উপায়, অল্প টাকায় যে ব্যবসা গুলো করা যায়। 

Saturday, October 14, 2017

অল্প টাকায় ব্যবসা করুন পর্ব - ১১

সব চেয়ে সহজ ভাবে ইনকাম করতে আজি এই ব্যবসা করুন।

এই রকম আরো পোস্ট দেখতে ক্লিক করুন http://yobuilder.com/9715

এখন থেকে আপনাদের আর পঞ্চ কেটে স্যান্ডেল বানাতে হবেনা, অযথা ওয়েস্টেজ অংশের টাকা দিতে হবেনা, ডিজাইন এর জন্য আলাদা ডাইস কিনতে হবেনা, এখন আরো কম দামেই পারবেন বানাতে স্যান্ডেল। 


মাত্র ২০-২৫ টাকায় স্যান্ডেল বানিয়ে লোকালে সেল করতে পারবেন ৫০-৮০ টাকায়। তাই লাভ হবেই হবে।

এই পেকেজ এর মাধ্যমে আপনি একটি ব্যবসায়ী আইডি, ফিলিং মেশিন, পিলার পাবেন। যতো ধরনের ডিজাইন চান, সেই ধরনের ডিজাইন এর কাটিং করা মাল পাবেন। আপনারা শুধু ফিলিং আর পিলার দিয়ে ফিতা লাগিয়ে তৈরি করতে পারবেন। যদি কমপক্ষে ঘন্টায় আপনি ১০০ পিস বানান, তাহলে প্রতিদিন ৮ ঘন্টায় পাবেন ৮০০ পিস, মাসে পাবেন ২৪ হাজার পিস

যদি প্রতি জোড়ায় আপনি মাত্র ৫ টাকাও লাভ করেন, তবে লাভ করতে পারবেন ১২০০০০ টাকা। লাভের টাকা থেকে সকল খরচ ৪০ হাজার বাদ দিলেও ইনকাম করতে পারবন ৮০ হাজার টাকা। চিন্তা করে দেখুন, জিবনের জুকি নিয়ে টাকা খরচ করে বিদেশে না গিয়েও দেশেই আপনি মাসে ৮০ হাজার টাকা আয় করতে পারছেন। এটা কিন্তু কম নয়।
মেশিন, প্রশিক্ষন ও কাচামাল আমাদের কাছেই পাবেন। 

এই প্যাকেজ এর সুবিধা :
১- কাটিং করতে হবেনা, 
২- এক্সটা সোলের টাকা লাগেনা,
৩- সোল অপচয় হয় না, 
৪- আলাদা ডিজাইন এর জন্য ডাই কিনতে হয়না, 
৫- আইডির মাধ্যমে যে কোন যায়ফা থেকে মাল কেনা যায়, 
৬- কাটিং নাই, তাই অল্প সময়ে অধিক মাল বানানো যায়। 

সকাল ৮:০০ থেকে রাত ৮:০০ পর্যন্ত কল বা যোগাযোগ করবেন, যদি রিসিভ না হয় মেসেস দিয়ে রাখবেন, সাপোর্ট বা মিটিং এ থাকলে কল রিসিভ করা যায়না, ধন্যবাদ। অর্ডার দেওয়ার সময় মিনিমাম ৫০% এডভান্স দিতে হবে, ৩ দিনের মধ্যে মেশিন ডেলিভারি দেওয়া হয়।
যোগাযোগ এর ঠিকানা ABC ENGINEERING (ME) LTD রাজেন্দ্রপুর বাজার ( ক্যান্টনমেন্ট), গাজীপুর-১৭৪১, ঢাকা 01977886660, 01758631813


Tag: sandal making machine, sendel making machine price in bd, স্যান্ডেল তৈরির নেশিন, mahadi virus,

Friday, September 29, 2017

অটোমেটিক ইট বা ব্লক তৈরির ব্যবসা করে কোটিপতি হোন

বর্তমানে ইট পোড়ানো নিষেধ,  তাই সরকার শহর- সিটি থেকে ইট ভাটা উঠিয়ে দিচ্ছে, তাই এখনি সময় পুড়ার বদলে অটোমেটিক ইট তৈরির ব্যবসা করার, আয় ও পরিবেশ রক্ষা দুটোই হবে একসাথে।

এটা অটোমেটিক ব্রিক বা ব্লক তৈরির ম্যানুয়াল মেশিন।

ভিডিও দেখুন মেশিন এর।

এই মেশিন কিনে কাজ শুরু করতে পারেন, চায়না মেশিন, তাই চায়না থেকে জদি কেউ আমাদের মাধ্যমে মেশিন আনতে চান, তবে আনতে পারেন।

প্রডাকশন - প্রতিদিন 1 - 2 হাজার পিস।



ইট বা ব্লক তৈরিতে আপনি মাটি বা সিমেন্ট, বালি রাবিশ, পাথর ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারেন।

শুধু মাত্র আমাদের কাছ থেকে মেশিন কিনলে পাবেন ফ্রি ট্রেনিং, ফ্রি সেটাপ, ফ্রি ট্রান্সপোর্ট, আমাদের চায়না ও ইন্ডিয়াতে অফিস আছে, সেই জন্য আমরা গুড সার্ভিস দিতে পারি। তাই আমাদের কাছ থেকেই কিনুন,


😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍
মেশিন মুল্য মাত্র- ১৬০০০০ টাকা।
কন্ডিশন- ৫০% এডভান্স ডিপোজিট মানি
ডেলিভারি টাইম - ৩০-৪৫ দিন
বাকি পেমেন্ট ডেলিভারির সময়
১ বছরের সার্ভিসিং ফ্রি।

বিভিন্ন দামের বিভিন্ন মডেল এর পাওয়া যায়।

😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍😍



যদি কেউ এক্সটা ডাইস ( ইটের ডিজাইন) চান, তবে সসাথে আরো ৪৫০০০ টাকা যোগ দিতে হবে।



প্রথমে এক ডিজাইন এর ব্লক বা ইট বানাতে পারেন, তার পর অন্য ডিজাইন আনতে পারেন।

ব্লক ইট পুড়ারে হয়না তাই খরচ বাছে, এটাতে সিমেন্ট ব্যবহার হয়, তাই শুখিয়ে যায় পুড়ানো ছারাই।

++++++---*****&*----++++😫😫😫😫😫😜😜

হাইড্রোলিক ইট বা ব্লক মেকিং মেশিন।

এই মেশিন বিদ্যুৎ বা ডিজেল দিয়েও চালাতে পারবেন,,যে কোন এক উপায়ে মেশিন বিক্রি হয়। ডিজেল জনপ্রিয়।



এই ইট বা ব্রিক এর প্রাইজ অনেক বেশি, কারন এর উজন ও শক্তিশালী বেশি।

সেটাপ খরচ- ১৫ লক্ষ টাকা।
প্রডাকশন - ১০ হাজার।

এই ধরনের মেশিন কিনতে আজি যোগাযোগ করুন-

ABC ENGINEERING (ME) LTD
01977886660, 01758631813
রাজেন্দ্রপুর বাজার ( ক্যান্টনমেন্ট) ,  গাজীপুর -১৭৪১, ঢাকা, বাংলাদেশ।

নতুন যারা তারা কল দিয়ে আসবেন, আমরা বেশি শনিবারে ফ্রি থাকি, সকাল ৯:০০ থেকে রাত ৮:০০ পর্যন্ত কল দিবেন।

কলে না পেলে মেসেস দিয়ে রাখবেন, উত্তর পাবেন ইন্সশায়াল্লাহ।







Tag: automatics brick making machine, block making machine, block making machine price in bd, brick making machine, ইট তৈরির মেশিন, ব্লক তৈরির মেশিন

Monday, September 18, 2017

সেন্ডেল বা স্লিপার তৈরির মেশিন কিনে ইনকাম লক্ষ টাকা




সেন্ডেল তৈরির মেশিন কিনে আজি শুরু করুন অল্প পুজির এই ব্যবসা।

অল্প পুজিতে বা অধিক পুজি নিয়ে আজি শুরু করুন এই সেন্ডেল বা স্লিপার তৈরির ব্যবসা।

বার্মিজ স্যান্ডেল তৈরির কাচামাল

মাত্র ১ লক্ষ টাকায় শুরু করতে পারবেন এই ব্যবসা। মেশিন মুল্য বর্ত্মানে অফ সিজন তাই ৬৫ হাজার টাকা। পুজি বেশি হলে ইনকাম ও বাড়বে।




মেশিন কিনলে ফ্রি ট্রেনিং এর ব্যবস্থা, ডেলিভারিত থাকছেই।

সেন্ডেল বা স্লিপার তৈরির মেশিন।


সাথে পাবেন ১ টি ডিজাইন এর ডাইস।

এ সুযোগ সিমিত সময়ের জন্য, তাই আপনার মেশিন এর জন্য আজি অর্ডার দিন।



আয় ব্যয় এর হিসেব:
যদি ৩ জন লোকে কাজ করে তবে আপনি প্রতি শিফটে (৮ঘন্টায়)  সেন্ডেল বা স্লিপার পাবেন ৮০০-১০০০ পিস,

একটি সেন্ডেল তৈরির কারখানা।


তাহলে মাসে পাবেন ৯০০x৩০= ২৭০০০ পিস
যদি সকল খরচ বাদ দিয়ে শুধু লাভ হিসেব করেন তাহলে আপনি ৫ টাকা লাভ হলে মাসে লাভ হবে ২৭০০০x১৫= ১৩৫০০০ টাকা।

যদি মেশিন বা শিফট বাড়ান তবে অধিক আয় করাও সম্ভব।

কাচামাল আমাদের কাছে ও দেশের সকল যায়গায় পাবেন।



বি:দ্র: মনে রাখবেন সকল জুতা বা সেন্ডেল এর বাজার মুল্য কে ৩ দিয়ে ভাগ দিবেন, যদি ৬০ টাকা সেন্ডেল হয়,  তবে ৩ ভাগে হয় ২০ করে,
প্রথম ২০ তৈরি খরচ,
দ্বিতীয় ২০ আপনার ও পাইকারের লাভ,
তৃতীয় ২০ দোকান দারের লাভ।

ভিবিন্ন কোয়ালিটির ফিতা পাওয়া যায়।

যদিও জুতার প্রাইজ অনেক বেশি, এটা শুধু বুঝানোর জন্য দেওয়া হইছে।



মেশিন কিনতে হলে আগে ৫০% এডভান্স ডিপোজিট মানি দিতে হবে, বাকি মুল্য মেশিন হাতে পেয়ে দিবেন।

বাংলাদেশ ও কলকাতার যে কোন যায়গায় পেতে যোগাযোগ করুন।




স্যান্ডেল তৈরির সকল কাচামাল আমাদের কাছেই পাবেন।

স্যান্ডেল এর ডাইস ও কাচামাল পাওয়া যায়।


ABC ENGINEERING (ME) LTD
ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান
রাজেন্দ্রপুর বাজার ( ক্যান্টনমেন্ট),  গাজীপুর-১৭৪১, ঢাকা।
কল: ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, ০১৭৫৮৬৩১৮১৩.







আমাদের আরো পণ্য দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন-
https://youtube.com/watch?v=PQSVh_k1wCk




Tag: sendel making business, sendel making machine, সেন্ডেল তৈরির মেশিন, অল্প টাকায় লাভজনক ব্যবসা, সেন্ডেল তৈরির মেশিন, মায়ে আয় করুন লক্ষ টাকা।

Friday, August 4, 2017

মেশিন দিয়ে মুড়ি তৈরির ব্যবসা। আয় করুন কোটি টাকা

আমাদের দেশে এখনো ব্যবসা করার মতো অনেক পথ আছে, যেই পথে হেটে আপনি সহজেই কোটিপতি হতে পারেন, তেমনি গিয়ে চাকুরি না করে, বিশে যাওয়ার টাকায় আপনি বাংলাদেশে বসেই শুরু করতে পারেন মুরি তৈরির মেশিন দিতে মুটির পাইকারি ব্যবসা।

https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=826963&ga=g

ছবি বড়ো করে দেখতে ক্লিক করুন ছবিতে।

আমাদের দেশে ১২ মাসি মুড়ি চলে সব ধর্মেই, আমাদের প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় মুড়ি থাকেই, রোজা, পূজা ইত্যাদি অনুস্টানে মুরির হাহাকার চারি দিকে, তাই এই চাহিদাকে কাজে লাগিয়ে আপনিও শুরু করতে পারেন মুড়ি তোইরির ব্যবসা। 




আগে আমাদের দেশে বাড়িতেই মুড়ি ভাজার কাজ হতো, কিন্তু বিজ্ঞান এর উন্নতির ফলে একগন মেশিনেই হচ্ছে এসব মুড়ি ভাজার কাজ, অনেকে মুড়ির রঙ চকচকে করার জন্য ইউরিয়া সার ব্যবহার করে, এটা মানুষ এর জন্য বিষাক্ত, তাই এটা করবেন না। 
https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=826963&ga=g
 চিত্র-1: মুড়ি তৈরির মেশিন, বিদ্যুৎ ও কাঠ, কয়লা, গ্যাস এ চালিত।
ছবি বড়ো করে দেখতে ক্লিক করুন ছবিতে।


চিত্র-2: মুড়ি তৈরির মেশিন, বিদ্যুৎ এ চালিত। 
ছবি বড়ো করে দেখতে ক্লিক করুন ছবিতে। 

মুড়ি তৈরির মেশিন তিন প্রকারের পাওয়া যায়, আমি দুই রকমের ব্যপারে দেখালাম। 

https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=826963&ga=g
অবর্তমানে বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে চিত্র ১ এ দেখানো মেশিনটি। এই মেশিন অল্প খরচে প্রচুর উতপাদন পাওয়া যায়, যেমন প্রতি ঘন্টায় ৩০০ কেজি থেকে শুরু। আরো বেশি প্রডাকশন এর মেশিনও পাওয়া যায়। 

আপাদত এই মেশিন নিয়েই কথা বলি, এটা চালাতে হলে আপনার বিদ্যুৎ ও কাঠ, কয়লা বা গ্যাস লাগবে। আশা করি এইগুলো সহজ লভ্য ব্যবসায়ী দৃষ্টিকোন তগেকে দেখলে। 

মেশিন এ আছে- ১ ঘোরা ও ২ ঘোরা ইলেক্ট্রিক মটর, ১০ ফিট ৬ ইঞ্জি ভাজার ড্রাম, চিমনি ১২ ফিট ইত্যাদি, তাই মেশিন সেটাপ করে ব্যবসা শুরু করতে আপনার ২২ ফিট টু ১৪ ফিট সাইজের রুম লাগবে। 


আয় ব্যয় এর ধারনা।

এই মাপের একটি মেশিন সেটাপ করতে আপনাকে ব্যয় করতে হবে প্রায় ৩,৬০০০০ লক্ষ টাকা। 



https://ylx-4.com/fullpage.php?section=General&pub=775621&ga=g



আয় এর ধারনা: 
আপনি প্রতিদিন উতপাদন করবেন ৩৫০ কেজি মুড়ি ঘন্টা হিসেবে, তাহলে প্রতিদিন এক শিফট ৮ ঘন্টায় ২৮০০ কেজি মুড়ি প্রায়। 

চাল কিনতে হবে ৩৫ টাকা কেজি, মুড়ির চাল এর দাম কম, পাইকারি রেট এটা। 

ত প্রতিদিন চাল লাগবে ২৮০০ কেজি X ৩৫ টাকা = ১,০০,৮০০ টাকা।

সেন্ডেল বা স্লিপার তৈরির মেশিন কিনে ইনকাম ২,৫০,০০০ টাকা 

প্রতিদিন মুড়ি প্রতিদিন সেল করতে পারবেন, যদি স্টক করেন, তাহলে আয় বেশি হবে। 

যদি আপনি প্রতিদিন তৈরি করেন ২৮০০ কেজি মুড়ি, তাহলে ৩০ দিনে পাবেন ৮৪০০০ কেজি মুড়ি। 


যার বর্তমান বাজার মুল্য পাইকারি হিসেবে বিক্রি করলে পাবেন -
৮৪০০০ কেজি গুন ৬০ টাকা = ৫০,৪০,০০০ টাকা প্রায়। 



তাহলে ব্যয়-
প্রতিদিন চাল লাগবে ১০০৮০০ টাকার ৩০ দিনে ৩০২৪০০০ টাকা

চালে খরচ           ৩০২৪০০০
লাকরি ৩০ দিনে     ১০০০০০
বিদ্যুৎ                    ১০০০০০
পলিব্যগ বস্তা          ১৫০০০০
লেভার খরচ ৩ জন   ৩০০০০
অন্যান্য খরচ।            ৫০০০০
মোট।                    ৩৪৫৪০০০ টাকা প্রায় খরচ মাসে

তাহলে ইনকাম হচ্ছে-
মুড়ি বিক্রি করে আয় ৫০৪০০০০ টাকা
মাসে খরচ।               ৩৪৫৪০০০ টাকা
মোট লাভ হচ্ছে         ১৫৮৬০০০ টাকা প্রায় প্রতি মাসেই লাভ হবে সুধ মুক্ত ভাবে শুধু হালাল উপায়েই। 


একবার চিন্তা করে দেখুন বিদেশ গিয়ে কাজ করবেন অনিশ্চিত ভাবে, নাকি দেশেই আয় করবেন নিশ্চিত ভাবে? 

মেশিন পত্র ও পরামর্শের জন্য যোগাযোগ করুন নিচের 

ঠিকানায়: 
ইঞ্জি: মেহেদী হাসান
এবিসি ইঞ্জিনিয়ারিং ( মি)  লিমিটেড
রাজেন্দ্রপুর বাজার, গাজীপুর-১৭৪১, ঢাকা
কল: ০১৯৭৭৮৮৬৬৬০, ০১৭৫৮৬৩১৮১৩
ফেইসবুকে: exportbdimport



Tag: rice roster machine, rice roster machine in bd, automatic rice roster machine, মুড়ি তৈরির মেশিন, মুড়ি ভাজার মেশিন, মুড়ি বানানোর মেশিন। 



Like Page

Comments Box